ভুল

পদকর্তা দাশরথি রায় সেই কবে গেয়েছেন – আমি স্বখাত সলিলে ডুবে মরি শ্যামা – দোষ কারো নয় গো মা। কিন্তু ভুল করা আর ভুল স্বীকার করা বা না করার মধ্যে যে অনন্ত গোলকধাঁধা , তাতেই পাক খেতে খেতে মানব জীবন শেষ হয়ে এল। কোনো ‘ঐতিহাসিক ভুল’ কখনো কোনো ক্ষণজন্মা পুরুষকে ইতিহাসে স্থান করে দেয় আবার সেই ভুল অন্য কোনো রূপে এসে তার উত্তরসূরিকে ছুঁড়ে ফেলে ইতিসাসের আস্তাকুড়ে। তবে বুঝে – না বুঝে সজ্ঞানে বা অজ্ঞানে – ভুল করলে তার দায়িত্ব নিজের। সেই জন্য কোম্পানি কোনো দায়িত্ব নেবেন না। এটাই দস্তুর। তাই বাসের সতর্কীকরণে যেমন লেখা থাকে – মালের মতো ভুলের দায়িত্বও আরোহীর।

এক অভিজ্ঞ পকেটমার বাসে এক তরুণীর ব্যাগ কাটলো। সাধারণ কাজ – রোজ যেমন করে থাকে তেমনি। কিন্তু অদ্ভুত ভাবে সন্ধ্যে হওয়ার আগেই পুলিশ তাকে তুলে নিয়ে জেলে পুড়লো। জেল খেটে বেরোনোর পর এক সাগরেদ জিজ্ঞেস করলো – ” কি হলো ওস্তাদ ? ধরা পড়লে কি করে? ”
ওস্তাদ জবাবে বললো ” বড্ডো ভুল হয়ে গেছিল রে ! আগে কি জানতাম ওটা বড়োবাবুর শালী?”

পকেটমার ভদ্রলোক জেল খেটে ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করেছিলেন। কিন্তু সেই সুযোগ পায় কতজন ? দেখেছেন না – ঘরে বাইরে, রেস্টুরেন্ট, সিনেমায়, বাসে, ট্রেনে – একটা খেদোক্তি সব জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছে “আগে এমন জানলে তোমাকে বিয়ে করতাম না !” তবে এই সূত্রে একটা জরুরি কথা বলে রাখি। মহাজনের মত হলো যে বিবাহিত পুরুষদের তাদের ভুলের কথা মনে না রাখলেও চলবে – কারণ একই ভুলের কথা পরিবারে দুজনের মনে রাখা পন্ডশ্রম।

তবে সবাই তো আর না জেনে ভুল করে না। অনেকে জেনেও করে। আমাদের দমদমের বাড়ির পাশে এক মহিলা থাকতেন। পাড়ারই এক দাদাকে বিয়ে করেছিলেন। ভদ্রমহিলার শাশুড়ির ছিলেন সাঙ্গাতিক সূচিবায়ুগ্রস্থ। এই নিয়ে প্রতিদিন বাড়িতে অশান্তি খেলেই থাকতো। এক শীতের দুপরে উল বুনতে বুনতে পাড়ার আরো মহিলাদের কাছে উনি এইসব দুঃখ করছিলেন। মহিলাদের মধ্যে একজন প্রশ্ন করলেন “এরা তো তোমার পাড়ার লোক, বিয়ের আগে জানতে না যে শাশুড়ি এমন ?” জবাবে এসেছিল একটা ওয়ান লাইনার। “কিছু করার নেই বৌদি, আমি জেনেশুনে বিষ করেছি পান !!” রবিবাবুও বোধহয় শ্মশ্রুর ফাঁক দিয়ে মুচকি হাসলেন !!

অন্য বিষয়ে যাওয়ার আগে পুরোনো পাড়ার আরেকটা গল্প বলি। আমার তরল লেখায় এই গল্পটা আসা উচিত কিনা জানি না। তবে ভুল মধ্যেও অনেক সময় আমাদের সমাজের অন্য রকম একটা মুখ ফেটে ওঠে, মধ্যে সেই অর্থে ঠিক হাস্যরস নয় – কিঞ্চিৎ করুণ রসের ছোঁয়া দেখতে পাই ।

পাশাপাশি দুই বাড়ি। দুই বাড়ির কর্তাই ব্যাংকে চাকরি করেন। তাদের গিন্নিরাও কেন্দ্রীয় সরকারে চাকরি করেন। দুজনেরই দুটি করে কন্যা সন্তান। দুই ভদ্রলোকের মধ্যে বয়সে একটু পার্থক্য আছে কিন্তু চাকরি ও পারিবারিক প্রেক্ষাপটের মিল থাকায় – বেশ ভালো সম্পর্ক। এদের মধ্যে একটু বয়ষ্ক ভদ্রলোক একবার একটা বড় বাজি খেলে ফেললেন। ছোট মেয়ে যখন ক্লাস সিক্স-সেভেনে পড়ে তখন আর একবার ছেলের জন্য ট্রাই নিলেন। এবারও দান উল্টো পড়লো – মেয়ে হলো। এক বর্ষার সন্ধ্যায় টিপটিপে বৃষ্টির মধ্যে টিমটিমে ল্যাম্পপোস্টের নিচ্ছে দুজন কথা বলছিলেন। পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় শুধু একটা বাক্যই কানে এসেছিল “বড় ভুল হয়ে গেল হে !!”

তবে পরিনাম না চিন্তা করে কাজ করার পর ভুল স্বীকার আর পস্তানোর উদাহরণ দেশে দেশে কালে কালে ঝুড়ি ঝুড়ি পাওয়া যাবে। যার নবীনতম উদাহরণ ব্রেক্সিট পরবর্তী অধ্যায়ে ব্রিটিশ জনগনের ব্যবহার। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে মহানিষ্ক্রমণের জন্য ভোট দেওয়ার পর নাকি তারা গুগুল থেকে বুঝতে চাইছিলেন ‘ইইউ’ ব্যাপারখানা কি এবং সেখান থেকে বেরিয়ে গেলে ব্রিটিশদের কিকি অসুবিধা হতে পারে ! বোঝো!! এখানেই শেষ নয়, এবার নাকি ১২-১৩ লাখ লোক পিটিশন দিয়ে আবার ভোট চাইছে – ভুল শোধরানোর জন্য !!

সমকালীন রাজনৈতিক ঘটনার কথা যখন উঠলো তখন আরো একটা টাটকা খবর থেকে একটু রস নিংড়ে দেখি। নিউক্লিয়ার সাপ্লাই গ্রূপে ভারতের অন্তর্ভুক্ত রুখে দিয়েছে চীন। সেই নিয়ে চীনা মালপত্র বয়কট করার ডাক পড়েছে ফেসবুকের দেওয়া দেওয়ালে। সেই সূত্রে মনে পড়লো পুরোনো একটা গল্প। ‘৬২ সালে চীনের সাথে যুদ্ধের সময় বেশ কিছু অত্যুৎসাহী মানুষ কলকাতার বেন্টিঙ্ক স্ট্রিট এলাকায় ছাপোষা চীনাদের জুতোর দোকান লুঠ করে মহান দেশপ্রেমিক হওয়ার নজির স্থাপন করেছিলেন। লুঠপাঠের পরের দিন কার্জন পার্কের নির্জনে একজনকে দুঃখ করতে শোনা গেল। গতকাল রাতে এক দোকান থেকে ভালো দেখে একজোড়া জুতো লুঠ করেছিলেন উনি। কিন্তু সেখানেও ভুল ! সকালে নাকি দেখলেন এক পাটি কালো আর আরেক পাটি ব্রাউন !!

বিভিন্ন রসিক চূড়ামনির নামে একটা দামি কথা প্রচলিত যাচ্ছে। আমাদের মধ্যে কেউ অন্যদের ভুল থেকে শিক্ষা নেয় – আর বাকিদের কপালে থাকে সেই ‘অন্যরা’ হওয়া।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s